Tuesday , 9 January 2024 | [bangla_date]
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. উপ-সম্পাদকীয়
  4. কুমিল্লা
  5. কৃষি
  6. খুলনা
  7. খেলাধুলা
  8. চট্টগ্রাম
  9. জাতীয়
  10. ঢাকা
  11. নারী ও শিশু
  12. পরিবেশ
  13. পাঠকের কথা
  14. ফিচার
  15. বরিশাল

কুমিল্লায় ভোটের লড়াইয়ে জামানত হারিয়েছে তিন মন্ত্রীর সকল প্রতিদ্বন্দ্বি!

প্রতিবেদক
MD. ALA UDDIN
January 9, 2024 8:00 pm

দেশ রূপান্তর: কুমিল্লার তিন মন্ত্রীর সঙ্গে ভোটে অংশ নিয়ে জামানত হারিয়েছে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী সকল প্রার্থী। গত ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা ৯, ১০ ও ১১ আসন থেকে ভোটে অংশ নেন ২০ প্রার্থী। এসব আসনে বিজয়ী তিন প্রার্থী বাদে বাকি ১৭ জন প্রার্থীই তাদের জামানত হারিয়েছেন।

নির্বাচনী ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসনে মোট ভোটার ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৫৪৮ জন। ভোট পড়েছে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৫৪৩ টি। এ আসনে নৌকার প্রার্থী স্থানীয় সরকার মন্ত্রী  মো: তাজুল ইসলাম ২ লাখ ৩৩ হাজার ৯৪৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ মনোনীত মীর মো: আবু বকর সিদ্দিক (চেয়ার) প্রতীকে ৮ হাজার ২৬০ ভোট, জাতীয় পার্টির প্রফেসর ড. মো: গোলাম মোস্তফা কামাল (লাঙ্গল) প্রতীকে ৬ হাজার ১৫৯ ভোট, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের মো: জমির উদ্দিন (গামছা) প্রতীকে ৩ হাজার ১৪৬ ভোট, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মো: মোয়াজ্জেম হোসেন জালালী (মোমবাতি) প্রতীকে ২ হাজার ৮২৭ ভোট, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ-ইনু) বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিরুল আনোয়ার (মশাল) প্রতীকে ১ হাজার ৫৭৫ ভোট ও বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের মো: হাছান মিয়া (নোঙ্গর) প্রতীকে ৬৩০ ভোট পেয়ে জামানত হারান। এ আসনে ভোট পড়েছে ৫৯.২৪%।

কুমিল্লা ১০ (নাঙ্গলকোট সদর দক্ষিণ ও লালমাই) আসনে ভোটার ৬ লাখ ২১ হাজার ৯৩২ জন। এ আসনে ভোট পড়েছে ২ লাখ ৪৭ হাজার ২২৭। নৌকা প্রতীক প্রার্থী অর্থমন্ত্রীর আ হ ম মুস্তফা কামাল ২ লাখ ৩২ হাজার ৬৯৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন।

তার প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পাটির (নাঙ্গল) মিসেস জোনাকির হুমায়ুন ৮ জাহার ৫৪৮ ভোট, বাংলাদেশ কংগ্রেস (ডাব) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান ২ হাজার ৬০৯ ভোট, গণফোরাম (উদীয়মান সূর্য) মো. শহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া ১ হাজার ১১৪ ভোট ও বাংলাদেশ সুপ্রিম (একতারা)  এম অহিদুর রহমান ২ হাজার ২৫৭ ভোট পেয়ে জামানত হারান। এ আসনে ভোট পড়েছে ৪০.৪৮%।

কুমিল্লা ১১ (চৌদ্দগ্রাম) আসনে ভোটার ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৮০৮ জন। এ আসনে ভোট পড়েছে ২ লাখ ৯ জাহার ৯০৬। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সাবেক রেল মন্ত্রী মজিবুল হক ১ লাখ ৮১ হাজার ৬৭৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র (ফুলকপি) মিজানুর রহমান ২২ হাজার ৭০০ ভোট, স্বতন্ত্র (ঈগল) মিজান উদ্দিন ১ হাজার ৪১২ ভোট, জাতীয় পাটি (লাঙ্গল) মোস্তফা কামাল ২ হাজার ২৯৮ ভোট, ইসলামী ঐক্যজোট (মিনার) খোরশেদ আলম ৯৯০ ভোট, তৃণমূল বিএনপি (সোনালী আঁশ) ইলিয়াস মজুমদার ৩৮৮ ভোট, বাংলাদের ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (টেলিভিশন) জসিম উদ্দিন ২৫২ ভোট ও গণফোরাম (উদীয়মান সূর্য) আব্দুর রহমান জাহাঙ্গীর ২৯২ ভোট পেয়ে জামানত হারান। এ আসনে ভোট পড়েছে ৫৪.৩০%। জামানত থাকতে হলে বৈধ ভোটের আট ভাগের এক ভাগ ভোট পেতে হয়।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, এবার দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লার ১১টি আসন থেকে ভোটে অংশ নেন ৯৩ প্রার্থী। তার মধ্যে ৭৬ জন প্রার্থী জামানত হারান। আওয়ামী লীগ থেকে ১১ জন, স্বতন্ত্র ২০ জন, জাতীয় পার্টি থেকে ১০ জন, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি থেকে সাতজন, ইসলামী ঐক্যজোট থেকে পাঁচজন, তৃণমূল বিএনপি, বাংলাদেশ কংগ্রেস ও গণফ্রন্ট থেকে চারজন করে, গণফোরাম, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ থেকে তিনজন করে, বিএনএফ, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন, জাসদ ও ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ থেকে দুজন করে, ন্যাপ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দালন, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি ও বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টি থেকে একজন করে প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নেন।

About Author

সর্বশেষ - কুমিল্লা